‘করোনা তুমি পরাজিত হবে ইনশাআল্লাহ’

সাংবাদিক আব্দুস সালাম বাবু’র ফেসবুক থেকে হুবহু প্রকাশ-

বগুড়া প্রেসক্লাব, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়ন সহ সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা

করোনা মোকাবেলায় প্রয়োজন শারীরিক শক্তি, আরো বেশি প্রয়োজন মানসিক শক্তি। মনোবল ঠিক থাকলে করোনা আপনার কিছুই করতে পারবেনা।
মনোবল চাঙ্গা করতে ঠিক সেই কাজটিই করেছেন বগুড়া প্রেসক্লাব সভাপতি মাহমুদুল আলম নয়ন ভাই ও সাধারণ সম্পাদক আরিফ ভাই। তাদের সে কর্মকাণ্ডে সব সময় সহযোগিতা করেছেন বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি আমজাদ হোসেন মিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক জেএম রউফ।

করোনা মোকাবেলার শুরুতেই বগুড়া প্রেসক্লাব সভাপতি সাধারণ সম্পাদক এর উদ্যোগে কর্মরত সাংবাদিকদের পিপি ই সহ ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান করা হয়েছে। ক্লাবে হাত ধোয়ার বেসিন স্থাপন এবং স্যানিটাইজার ব্যবহার করা শুরু হয়। টিসিবির পণ্য ক্রয় করতে পারেন সদস্যরা সে ব্যবস্থাও করেন তারা। ক্লাবের অসচ্ছল কর্মহীন সদস্যদের জন্য চালডাল সহ খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়।
এরপর সদস্যদের করোনা পরীক্ষা করার জন্য ক্লাব চত্বরে নমুনা নেওয়া হয়। পরীক্ষায় অনেকেই পজেটিভ। ক্লাব লকডাউন করে দেওয়াসহ, করোনা পজিটিভ সদস্যদের সাথে প্রত্যেকদিন একাধিকবার ফোন করে খোঁজ নিয়েছেন ক্লাব সভাপতি নয়ন ভাই ও সাধারণ সম্পাদক আরিফ ভাই। বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আমজাদ হোসেন মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক রউফ ভাই নিয়মিত খোঁজ নিয়েছেন এবং নিচ্ছেন। সদস্যদের মনোবল বাড়ানোসহ তাদের চিকিৎসার জন্য অনেকের বাড়িতে ওষুধ পৌঁছে দেওয়া খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া সবই করছেন তারা।

আজ বিভিন্ন ধরনের ফল সাজিয়ে বক্স তৈরি করে বগুড়া প্রেসক্লাব ও বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়ন এর পক্ষ থেকে ফল পাঠানো হচ্ছে করোনা পজিটিভ সদস্য ও সাংবাদিকদের বাড়িতে। করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি নিয়েও নয়ন ভাই, আরিফ ভাই ,মিন্টু ভাই ও রউফ ভাই করণা পজিটিভ প্রত্যেক সাংবাদিকের সাথে দেখা করছেন। তাদের সাথে সানুদা, ইলিয়াস ভাই এসেছিলেন। বগুড়া প্রেসক্লাবের ঐতিহ্য সারা দেশের মানুষ জানে। প্রত্যেকের প্রতি প্রত্যেকের ভালোবাসা শ্রদ্ধা স্নেহের বন্ধন আমাদের এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে 60 বছর ধরে।

হরেক রকমের ফল, দেখা হল সবার সাথে, মনটা চাঙা হয়ে গেল।” কোনো অসুখ নেই, কোন টেনশন নেই, শুধু রেস্ট করো,” সাহস যুগিয়ে গেল যেমন, ঘরে একা একা থাকা বন্দী মনকে প্রফুল্ল করল তারা। শুধু আমি নই, আমার পরিবারের সব সদস্য উজ্জীবিত হলো, তারাও দারুন প্রফুল্ল ও আনন্দিত। ধন্যবাদ কৃতজ্ঞতা বগুড়া প্রেসক্লাব ও বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়ন।

অনেকগুলো ফল আর লেবু সাথে ওষুধ নিয়ে এসেছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ বগুড়ার সাধারণ সম্পাদক, হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাক্তার এস এম মিল্লাত। তিনি প্রতিদিনই খোঁজখবর নিয়েছেন। আর একজন প্রিয় মানুষ যিনি নিজে বিপদগ্রস্ত হয়েও খোঁজ নিচ্ছেন নিয়মিত বিভিন্নজনের মাধ্যমে।
করোনা পজিটিভ সাংবাদিকদের উপহার পাঠিয়েছেন জেলা যুবলীগের সভাপতি, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন দাদা। তিনি সবার খোঁজ নিয়েছেন, তার প্রতি কৃতজ্ঞতা।

মুঠোফোনে এবং ফেসবুক মেসেঞ্জারে সব সময় সাহস জুগিয়ে যাচ্ছেন আমাদের বগুড়াবাসীর অত্যন্ত প্রিয় মানুষ, অতিরিক্ত ডিআইজি,Rab-4 অধিনায়ক জনাব মোজাম্মেল হক বিপিএম পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব আসাদুজ্জামান বিপিএম বার, সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত যুগ্মসচিব জনাব নূরে আলম সিদ্দিকী স্যার, ডাকসুর সাবেক সদস্য ম. রাজ্জাক ভাই, রাকসুর সাবেক পত্রিকা সম্পাদক টিটন ভাই, সাবেক সফল ছাত্র নেতা বগুড়া পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনু ভাই ।

বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁইয়া বিপিএম বার, এসপি আরিফ ভাই, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজীউর রহমান, সদর থানার ওসি বদিউজ্জামান ভাই, পাবনা থেকে ইন্সপেক্টর রওশন আলী, আমাদের সবার প্রিয় অভিভাবক বেচান ভাই, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম ভাই, জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহন ভাই, যুগ্ম সম্পাদক আছাদুর রহমান দুলু ভাই, রোটা অধ্যক্ষ প্রকৌশলী সাহাবুদ্দিন সৈকত ভাই, সিনিয়র সাংবাদিক সমুদ্র হক ভাই, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আখতারুজ্জামান, মিলন রহমান, সাবেক সহ-সভাপতি জিয়া শাহিন, নাজমুল হুদা নাসিম, সবুর শাহ লোটাস, ঠান্ডা আজাদ, লিমন বাশার, বিশিষ্ট আইনজীবী ববি ভাই, তরুন রাজনীতিবিদ রাজ ভাই, ডাবলু ভাই, রনি ভাই, শিবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান রিজু ভাই, মেয়র শাহী সুমন, জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল চাচা , জেলা ট্রাক মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মতিন ভাই, বামমা সাধারণ সম্পাদক রাজেদুর রহমান রাজু ভাই, ফল ব্যবসায়ী মিঠু ভাই, দিনকাল বগুড়া অফিস প্রধান কালাম আজাদ, ফটোসাংবাদিক শফিক ভাই, প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক পল্লব, ফটো সাংবাদিক মিলন ভাই, জেড এ মিলন, আরিফ মামা সহ সাংবাদিকবৃন্দ, চিকিৎসকবৃন্দ, সামাজিক, সাংস্কৃতিক রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ছোট ভাই, বড় ভাই, সবাই মুঠোফোনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সব সময় সাহস যুগিয়ে যাচ্ছেন। তাদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা।

অসংখ্য মানুষের অজস্র ভালোবাসায় সিক্ত আমি। করোনা তুমি পরাজিত হবে ইনশাআল্লাহ। করোনা পজিটিভ সকল সাংবাদিক, চিকিৎসক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।
করোনা জয় করে নিশ্চয়ই ফিরে আসব আবার শীঘ্রই।
সবার দোয়া চাই।

ব্যক্তিগত ফেসবুকে লিখেছেন: মো. আব্দুস সালাম বাবু

তিনি দৈনিক উত্তরের দর্পণ পত্রিকার সম্পাদক, বগুড়া প্রেস ক্লাবের সহ সভাপতি, নিরাপদ সড়ক চাই বগুড়ার সহ সভাপতি এবং সম্মিলিত নাগরিক জোট বগুড়ার সদস্য সচিব।

 

সংবাদটি শেয়ার এবং লাইক করুন