বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবিতে ৩১ জনের লাশ উদ্ধার, তদন্ত কমিটি

তাজা খবর, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :: বুড়িগঙ্গা নদীতে অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ‘মর্নিং বার্ড’ নামে একটি লঞ্চ ডুবে গেছে। ঘটনাস্থল থেকে এখন পর্যন্ত ৩১ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।ডুবে যাওয়া লঞ্চে থাকা যাত্রীদের স্বজনদের কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে বুড়িগঙ্গার তীর। সোমবার (২৯ জুন) সকালে লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়। কমিটির প্রধান নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন ও পিপিপি সেল) মো. রফিকুল ইসলাম খান। কমিটিকে আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

ডুবে যাওয়া লঞ্চ থেকে সাতার কেটে তীরে উঠা একজন জানান, কাটপট্টি থেকে দুই ভাই একসাথে লঞ্চে উঠি। সদরঘাটের কাছাকাছি আসলে ‘ময়ূর ২’ লঞ্চের সঙ্গে ডুবে যাওয়া ‘মর্নিং বার্ড’ লঞ্চের সংঘর্ষ হয়। আমি সাতার কেটে উঠলেও ভাইকে তো পাই না।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল নয়টার দিকে মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি এলাকা থেকে সদরঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। সদরঘাটের কাছেই ফরাসগঞ্জ ঘাট এলাকায় নদীতে লঞ্চটি ডুবে যায়। এ ঘটনায় এখনও প্রায় ৫০ জনের মতো নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধারে তৎপরতা চালাচ্ছেন নৌবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি শাহ জামান বলেন, ধারণা করা হচ্ছে প্রায় ৮০/৯০ জন যাত্রী ছিলেন ওই লঞ্চে। এরমধ্যে নিখোঁজ হয়ে যান প্রায় ৭০ জন।

 

সংবাদটি শেয়ার এবং লাইক করুন