সাইবার ট্রিবিউনের একটি সফলতার গল্প

তাজা খবর রিপোর্ট:: কুড়িগ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মেয়ে পাশ্ববর্তী এক ছেলের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে ব্যক্তিগত ছবি আদান প্রদান। একসময় সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ছেলেটি সেই ছবিগুলো ছড়িয়ে দেয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ফলে মেয়েটির বিয়েও ভেঙে যায়। মেয়েটি প্রায় ৩ বছর ধরে সহ্য করছিল এসব তিক্ত অভিজ্ঞতা।

ঘটনার ৩ বছর পর মেয়েটি ‘বাংলাদেশ সাইবার ট্রিবিউন’ এর খোঁজ পায়। যোগাযোগ করেন সাইবার ট্রিবিউনের ইনচার্জ এইচ আর সোহাগের সাথে।সাইবার ট্রিবিউন টিম বিষয়টি পর্যবেক্ষণ শুরু করে। পরে লোকাল থানায় জিডি করার পর বিষয়টি সরাসরি সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের নজরে আনা হয়।

সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের তদন্তের ভিত্তিতে ও হস্তক্ষেপে কুড়িগ্রাম ভুরুঙ্গামারী থানার পুলিশ কর্তৃক অভিযুক্তকে গ্রেফতার ও আইনের আওতায় আনা হয়। মেয়েটিও একটি স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) এ ঘটনাটি শোনালেন বাংলাদেশ সাইবার ট্রিবিউনের ইনচার্জ এইচ আর সোহাগ। তিনি তাজা খবরকে বললেন, সকলকে সচেতন করার জন্য ঘটনা প্রকাশ করলাম, তবে ভুক্তভোগী এবং অপরাধীর নাম গোপন করে।

এইচ আর সোহাগ বলেন, ‘সম্পর্কের খাতিরে কখনোই নিজের ব্যক্তিগত ছবি অন্যের হাতে দেয়া যাবেনা। যাতে ভবিষ্যতে এই ছবিই ছুরি হয়ে নিজের গলা না কাটে। এই সচেতনতা তৈরি ও সাইবার অপরাধে আক্রান্ত মানুষকে আইনী পরামর্শ, পুলিশ ও জনগনের মাঝে সুসম্পর্ক বিদ্যমান করে সাইবার সেবা দেয়াই বাংলাদেশ সাইবার ট্রিবিউনের উদ্দেশ্য।’

সাইবার ট্রিবিউন যেসকল সেবাগুলো দিচ্ছে:

১। সাইবার অপরাধ এর সঠিক পরামর্শ।

২। সাইবার অপরাধে আক্রান্ত ভুক্তভোগীকে আইনী মাধ্যমে সেবা প্রদান।

৩। হারানো মোবাইল উদ্ধারে নিকস্থ থানার সাথে সমন্বয়।

৪। অনলাইন সমস্যার সমাধান।

৫। মোবাইল ব্যাংকিং জালিয়াতি রোধে সমন্বয় ও সেবা প্রদান।

৬।সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধিতে ক্যাম্পেইন ইত্যাদি।

সাইবার ট্রিবিউনের ইনচার্জ এইচ আর সোহাগ জানান, আমরা প্রাতিষ্ঠানিকভাবে অনেকট সফল। সাইবার ট্রিবিউনে মানুষ তাদের সমস্যাগুলো মন খুলে বলতে পারে। যেটা আমাদের পুলিশকে ভয়েও অনেক সময় বলেনা। আমরা সাইবার ট্রিবিউন থেকে প্রাপ্ত অভিযোগগুলো আইনিভাবে বিশ্লেষণ ও সমাধান করি। যার ফলে জনসেবা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। যেহেতু ইন্টারনেটের প্রসার দ্রুত হচ্ছে, ফেসবুকের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিপুলভাবে জনপ্রিয়, তাই এই সাইবার জগতে নিরাপদ থাকাটা জরুরি।

আমাদের সাথে যে কেউ যোগাযোগ করে সহায়তা নিতে পারেন। Bangladesh Cyber Tribune লিখে সার্চ দিলে পেজ ও গ্রুপ আকারে পাওয়া যাবে।

ডেস্ক/তাজাখবর/নজরুল ইসলাম নয়ন দয়া

 

সংবাদটি শেয়ার এবং লাইক করুন