ধর্ষণে মাদ্রাসা ছাত্রী ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

তাজা খবর, রবিউল ইসলাম : বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৫) জোরপূর্বক ধর্ষনের ফলে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার বার্থী এলাকার। এ ঘটনায় ধর্ষকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগি মাদ্রাসা ছাত্রীকে দীর্ঘদিন যাবত প্রেমের প্রস্তাব ও উত্যক্ত করে আসছিল একই গ্রামের মৃত খসরু মাঝির পুত্র বাপ্পি মাঝি (২২)। একপর্যায়ে বাপ্পির সাথে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ছয় মাস পূর্বে বাপ্পি মাঝি ভুক্তভোগির বসতবাড়ীতে এসে তাকে (ছাত্রীকে) জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

সূত্রে আরও জানা গেছে, গত ৫ জানুয়ারি ছাত্রীর পেটে ব্যাথা শুরু হয়। আসামী বাপ্পির মা র্ঝণা বেগম ও ভুক্তভোগির খালা তানিয়া বেগম ভুক্তভোগিকে একটি বেসরকারী ক্লিনিকে নিয়ে গেলে অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি প্রকাশ পায়। পরবর্তীতে বাপ্পিকে জানানো হলে ভুক্তভোগীকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে।

শুক্রবার মুঠোফোনে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কামাল হোসেন জানান, ভুক্তভোগীর ডাক্তারী পরিক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার এবং লাইক করুন