গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে: স্বামী ও শ্বাশুড়ী গ্রেফতার

তাজা খবর করেসপন্ডেন্ট : খুলনার পাইকগাছায় প্রথম স্ত্রীকে অ-স্বীকার করে দ্বিতীয় বিয়ে করায় স্বামী-শ্বাশুড়ী ও ননদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ নির্যাতিত নারীর স্বামী ও শ্বাশুড়ীকে সোমবার গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

থানায় মামলার বিবরণে, ৭ বছর পূর্বে ঢাকায় গার্মেন্টস চাকুরী সূত্রে উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নের মীর হায়বাত শেখের পুত্র মীর তৈয়বুরের পরিচয় হয়। দুজনেই একই স্থানে চাকুরির সুবাদে সুম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায় সৌদি প্রবাসী স্বামীকে তালাক দিয়ে রুমা ২০১৬ সালের ১ আগস্টে বিবাহ করেন। পরবর্তীতে এ দম্পত্তি মাঝে মধ্যে গ্রামের বাড়ীতে আসতেন। ৪ বছর সংসার জীবনে ফেরদাউস আরা (৪) নামে একটি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। কিন্তু তৈয়েবুরের পরিবার তাদের এমন বিবাহ মেনে নিতে পারেনি।

এদিকে মা ও বোনের কুপরামর্শে বিয়ের স্টাম্পটি ছিড়ে ফেলে স্ত্রী রুমা ও একমাত্র কন্যা ফেরদাউস আরা কে অস্বীকার করে তৈয়বুর। তৈয়বুর প্রথম স্ত্রীকে এড়িয়ে প্রলোভনে পড়ে দ্বিতীয় বিয়ে করে। উপায়ন্তর না পেয়ে প্রথম স্ত্রী রুমা পাইকগাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করে। যার নং-০২, তারিখ ০১/০৩/২১ ইং।

ওসি মো. এজাজ শফী জানান, নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামী ছেলে ও তার মাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার এবং লাইক করুন